ভিসার খবর ডটকম! 28/01/2016



সঠিক তথ্য না জানায় বিদেশে যাওয়ার সময় প্রতারিত হয় অনেকে। তবে অনলাইনে গিয়ে কিছু তথ্য জেনে নিয়ে ঝামেলা অনেকটা এড়ানো যায়। বেশির ভাগ দেশের সরকার পরিচালিত ওয়েব সাইটে শিক্ষা, অভিবাসন, চাকরি, ব্যবসা, ভ্রমণসহ প্রচলিত ভিসাসংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করে। থাকে ভিসা আবেদন ও বৈধতা যাচাইয়ের সুযোগও।

যুক্তরাজ্য সরকার পরিচালিত ‘ইউনাইটেড কিংডম বর্ডার এজেন্সি’ (ইউকেবিএ) বিদেশিদের ভিসা ও ইমিগ্রেশন-সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে সাজিয়েছে তাদের অফিশিয়াল ওয়েব সাইট (www.ukba.homeoffice. gov.uk)। তথ্যবহুল এ সাইটে অভিবাসন, ভ্রমণ, শিক্ষা ভিসা ছাড়াও দক্ষ কর্মী ও পেশাজীবীদের জন্য ‘ওয়ার্কিং হলিডে মেকার’ ভিসার তথ্য পাওয়া যাবে। যারা ‘স্টুডেন্ট ভিসা’য় যুক্তরাজ্যে উচ্চশিক্ষায় যেতে ইচ্ছুক, তারা ইউকেবিএ অনুমোদিত কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা দেখতে পারবে এই সাইট থেকে।

ঢাকার ব্রিটিশ দূতাবাস ও ইউকেবিএর অফিশিয়াল পার্টনার ভিএফএস গ্লোবালের ওয়েব সাইটে (www.vfs-uk-bd.com) পাওয়া যাবে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য নির্ধারিত ভিসা ফি, ভিসা প্রত্যাখ্যানের ক্ষেত্রে আপিল সম্পর্কিত পরামর্শ, ভিসা আবেদনের যোগ্যতা ও গাইডলাইন।

আবেদনকারীরা তাদের আবেদন প্রক্রিয়ার সর্বশেষ অবস্থা বা স্টেটাস সম্পর্কেও জানতে পারবে এই সাইটের ‘ট্র্যাক ইউর অ্যাপ্লিকেশন’ ক্লিক করে।

যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ডিপার্টমেন্ট অব স্টেটের অফিশিয়াল সাইটে ‘ভিসা ফর ফরেন সিটিজেন’ অংশে আমেরিকায় অভিবাসী হতে হলে কী করতে হবে, এইচ-ওয়ানবি, স্টাডি, ওয়ার্ক, ভ্রমণ ভিসার ফিসহ বিস্তারিত তথ্য এবং আবেদনের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেওয়া আছে।

আরো জানতে ভিজিট করুনhttp://travel.state.gov । ভিসা আবেদনকারীদের সুবিধার্থে প্রক্রিয়াধীন ভিসার হাল জানার জন্য আছে ‘অ্যাপ্লিকেশন স্টেটাস’ নামের ওয়েব পোর্টাল। তা ছাড়া ডিভি আবেদনকারীরা যাচাই করতে পারবে তাদের ভিসাপ্রাপ্তির তথ্য।

কানাডা

কানাডা সরকারের ‘সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন কানাডা’ (সিআইসি) অভিবাসন ও নাগরিক সেবা প্রদানকারী একটি প্রতিষ্ঠান। অফিশিয়াল ওয়েব সাইটের (www.cic.gc.ca) মাধ্যমে ভিসা প্রার্থীরা ভ্রমণ, অস্থায়ী চাকরি, শিক্ষা ও অভিবাসন ভিসার বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পারবে।

check application status -এ ক্লিক দিয়ে আবেদনকারীরা আবেদন প্রক্রিয়ার হাল সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবে। তা ছাড়া প্রার্থীর ভিসা আবেদনের যোগ্যতা আছে কি না, তাও যাচাই করতে পারবে এই সাইট থেকে।

অস্ট্রেলিয়া

অস্ট্রেলিয়ার ডিপার্টমেন্ট অব ইমিগ্রেশন অ্যান্ড সিটিজেনশিপের ভিসা-সংক্রান্ত সব তথ্য ও অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন সেবা পাওয়া যাবে এই ওয়েব সাইট থেকে www.immi.gov.au । ওয়ার্কার্স অংশে স্পন্সর ওয়ার্কার্স, প্রফেশনাল, স্কিল মাইগ্রেন্টসহ বিভিন্ন পেশাজীবীর জন্য চাকরি ভিসার তথ্য রয়েছে। তা ছাড়া ভিজিট, মাইগ্রেন্ট ও স্টুডেন্ট ভিসার পৃথক তিনটি অংশে প্রয়োজনীয় সব তথ্য দেওয়া হয়েছে। সাইটটির ‘অনলাইন সার্ভিস’ অংশে ভিসার আবেদন ও ভিসা আবেদনের প্রোগ্রেস চেক করা যাবে। প্রফেশনাল, ওয়ার্কিং হলিডে ও দক্ষ শ্রমিক ভিসা আবেদনের যোগ্যতা যাচাইসহ স্টুডেন্ট ভিসাধারীরা কাজের অনুমতির আবেদন করতে পারবে এ সাইট থেকে। ভিসা প্রত্যাখ্যান হলে কিংবা ভিসা-সংক্রান্ত সহযোগিতার জন্য যেসব অনুমোদিত এজেন্টের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে, তাদের খোঁজও পাবে এখান থেকে।

নিউজিল্যান্ড

ইমিগ্রেশন-সংক্রান্ত পরামর্শ, ভিসা ফি, ভিসা প্রক্রিয়ার দিকনির্দেশনা পাওয়া যাবে নিউজিল্যান্ড সরকারের ‘ডিপার্টমেন্ট অব লেবার’ পরিচালিত ইমিগ্রেশন-বিষয়ক এ ওয়েব সাইটে www.immigration.govt.nz । রেসিডেন্ট, স্টাডি, ওয়ার্কিং হলিডে, ভিজিট ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট-সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্য পাওয়া যাবে সাইটটিতে। তা ছাড়াও ‘স্কিল মাইগ্রেন্ট’ ও ‘বিজনেস অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট’ ক্যাটাগরিতে পাওয়া যাবে দক্ষ কর্মী, পেশাজীবী ও ব্যবসায়ীদের ভিসা-সংক্রান্ত তথ্য। ভিসা জটিলতা এড়াতে পরামর্শ নিতে পারে সে দেশের ইমিগ্রেশন অ্যাডভাইজার অথরিটির অফিশিয়াল সাইট (www.iaa.govt.nz) থেকে।

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় আবেদন করতে হলে কী ধরনের যোগ্যতা ও কাগজপত্র লাগবে, ভিসা আবেদনের নিয়মকানুন, আবেদন ফরমসহ প্রয়োজনীয় সব তথ্যই আছে সাইটটিতে। তবে এর আগে ভিজিট করতে হবে মালয়েশিয়া সরকারের ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টের এই সাইটে www.imi.gov.my । সাইটটির ‘ফরেনার্স’ বিভাগে বিদেশি নাগরিকরা ভিসা-সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ তথ্য ও দিকনির্দেশনা পাবে। শর্ট টাইম সোশ্যাল ভিজিট পাস, লং টাইম সোশ্যাল ভিজিট পাস, ভিসা উইথ রেফারেন্স, স্টুডেন্ট পাস এবং মালয়েশিয়া ইজ মাই সেকেন্ড হোম ভিসা প্রোগ্রামের তথ্য এবং আবেদনের যোগ্যতা, নিয়মকানুনও পাওয়া যাবে। আবেদনের পর ভিসাপ্রক্রিয়া কোন পর্যায়ে আছে, তাও জানা যাবে সাইটটির ‘অনলাইন সার্ভিস’ থেকে। অনলাইনে ভিসার আবেদন প্রক্রিয়ার বর্তমান হাল জানতে হলে No. Rujukan বক্সে ভিসা আবেদনের রেফারেন্স নম্বর এন্ট্রি করতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের ব্যাপারে মালয়েশিয়া সরকার নিষেধাজ্ঞার কারণে এ সাইটে ‘ওয়ার্ক ভিসা’-সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া গেলেও এ ভিসার অনলাইনে আবেদনের সুযোগ নেই।

সিঙ্গাপুর

মালয়েশিয়ার প্রতিবেশী দেশ সিঙ্গাপুর আয়তনে ছোট হলেও শক্তিশালী অর্থনৈতিক ভিতের কারণে অনেকেই দেশটিতে পারি জমাচ্ছে ওয়ার্ক ভিসা পারমিট নিয়ে। ভ্রমণ ও স্টুডেন্ট ভিসায়ও যাচ্ছে অনেকেই। বিদেশি ভ্রমণকারী, শিক্ষার্থী ও কর্মীদের ভিসা-সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পেতে সহায়ক হবে দেশটির ‘ইমিগ্রেশন অ্যান্ড চেকপয়েন্টস অথরিটির’ অফিশিয়াল ওয়েব সাইট (www.ica.gov.sg)।

সাইটটির ই-সার্ভিস অংশে ‘ইলেকট্রনিক অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুকিং সিস্টেমস’ (ই-অ্যাপয়েন্টমেন্ট), রি-এন্ট্রি পারমিট ভিসা, ভিজিট ভিসা ও এন্ট্রি ভিসার আবেদন এবং একই সঙ্গে ইস্যুকৃত ভিসার বৈধতা যাচাই করার যাবে। অনলাইনে ভিসার বৈধতা ও ভিসা আবেদন প্রক্রিয়ার সর্বশেষ অবস্থা জানতে হলে ক্লিক করুন লিংকটিতেhttps://ltpass.ica.gov.sg/eltsvp/main.do লিংকে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের শ্রম মন্ত্রণালয় বিদেশি ভ্রমণকারীদের ভিসা তথ্য ও আবেদন প্রক্রিয়া যাচাইয়ের সুবিধাসংবলিত লিংক সংযুক্ত করেছে তাদের অফিশিয়াল ওয়েব সাইটে (http://www.mol.gov.ae/molwebsite/en/home.aspx)। এ ছাড়াও রয়েছে ভিসার বৈধতা যাচাই করার সুযোগ।

www.mol.gov.ae/ownersservices/employeeCredential.aspx ওয়েব লিংকে গিয়ে পাসপোর্ট নম্বর, জন্ম তারিখ, জাতীয়তার তথ্য প্রবেশ করালেই ভিসা সঠিক না ভুল তা জানা যাবে।

ওমান

সুলতানাত অব ওমানের রাজকীয় পুলিশ প্রশাসনের অফিশিয়াল ওয়েব সাইটেই প্রয়োজনীয় ইমিগ্রেশন ও ভিসা তথ্য পাওয়া যায়। অনলাইনে ভিসা আবেদন ও প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য ভিজিট করুন সাইটটিতে- www.rop.gov.om। ‘ভিসা স্টেটাস ইনকোয়ারি’ জানতে ক্লিক করুন এই লিংকেwww.rop.gov.om/english/onlineservices_visastatus.asp

সৌজন্যে : কালের কণ্ঠ

You might like