গন্তব্যে পৌঁছাতে ১১ ট্রেনের সময় কমছে 18/02/2016



রেলের পূর্বাঞ্চলের (ঢাকা-চট্টগ্রাম) ১১টি ট্রেনের গন্তব্যে যাতায়াতের সময় কমছে। নতুন সূচি অনুযায়ী আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে এই ট্রেনগুলোতে যাতায়াতের সময় আগের চেয়ে কমবে। ট্রেনভেদে ৩০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত সময় কমবে বলে জানা গেছে। 

নতুন সূচির তথ্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও স্টেশনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে ঢাকা চট্টগ্রামগামী আন্তনগর ট্রেন সুবর্ণ, গোধূলি, প্রভাতি, চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস, চট্টগ্রাম-সিলেটগামী পাহাড়িকা, ঢাকা-নোয়াখালীগামী উপকূল ও ঢাকা-জামালপুর-তারাকান্দিগামী অগ্নিবীণা এবং চারটি মেইল-এক্সপ্রেস ঢাকা-কুমিল্লাগামী ডেমু ট্রেন, ঢাকা-চট্টগ্রামগামী চট্টলা, ঢাকা-ময়মনসিংহগামী ইশা খাঁ ও ভৈরব-শায়েস্তাগঞ্জগামী লোকাল ট্রেনের গন্তব্যে পৌঁছানোর সময় কমে যাচ্ছে।
রেলওয়ে সূত্র জানায়, নতুন সূচি অনুযায়ী বিরতিহীন সুবর্ণ এক্সপ্রেস চট্টগ্রাম থেকে শুক্রবার ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৭টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছাবে। যাওয়ার পথে ট্রেনটির সময় কমেছে ৩০ মিনিট। একইভাবে ট্রেনটি ঢাকার কমলাপুর থেকে বিকেল তিনটায় যাত্রা শুরু করবে এবং চট্টগ্রামে পৌঁছাবে রাত সাড়ে আটটায়। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে আসার পথে ট্রেনটির সময় কমবে ৫০ মিনিট।
রেলওয়ে সূত্র জানায়, চট্টগ্রামগামী মহানগর প্রভাতির পরিচালন সময় ৫৫ মিনিট কমেছে। এটি ঢাকায় থেকে প্রতিদিন সকাল সাতটা ৪০ মিনিটে যাত্রা শুরু করবে। আর চট্টগ্রাম পৌঁছাবে বেলা দুইটা ২০ মিনিটে।
রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মো. মকবুল আহাম্মদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘রেলের রানিং টাইম (পরিচালন সময়) কমিয়ে আনতে অবকাঠামোগত অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা ১১টি ট্রেনের রানিং টাইম কমিয়ে এনেছি। এখন যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছে যাবে। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন সূচি কার্যকর হবে।’

সৌজন্যে: দৈনিক প্রথম আলো

 

You might like