ফুলের তৈরি হার্ট !!! 16/02/2016



ফুলকে ভালোবাসে না এমন মানুষ পৃথিবীতে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর । বলা হয় সৌন্দর্য ও ভালোবাসার প্রতীক হচ্ছে ফুল। কবি বলেছেন যে মানুষ ফুল ভালবাসে না সে মানুষ খুন করতে পারে । ফুল ছাড়া তারুণ্যের জীবনের প্রতিটি বসন্ত যেন অর্থহীন। বিশ্বের এক এক স্থানের ফুলের আকার, ধরন ও গন্ধ এক এক রকম। বছরজুড়ে নানা রঙের নানা প্রজাতির ফুল প্রকৃতিকে সাজিয়ে তুলে অপরূপ সাজে। আর বিশ্বের নানা জাতের নানা গন্ধের সব ফুলের যদি এক স্থানে সমারোহ দেখেন কেমন লাগবে আপনার? আর ভালোবাসার স্বপ্ন দেখা আপন মানুষকে নিয়ে কেমন করে সাজানো হবে কুড়ে ঘর, প্রতীকী চিহ্ন হার্ট, গাড়ি কিংবা নৌকা তারও ধারণা দেয়া হয়েছে আরব আমিরাতে দুবাই মিরাকল গার্ডেনে।

আরব আমিরাতের প্রবাসী ও পর্যটকদের মন আকৃষ্ট করতে বিনোদনের জন্য নির্মিত হয়েছে দুবাই আল-বাশরার দেিণ বিশ্বের নানা প্রজাতির ফুল দিয়ে সাজানো মিরাকল গার্ডেন। সাপ্তাহের যেকোনো দিন থেকে ছুটির দিনে দর্শনার্থীদের উপছে পড়া ভিড় থাকে চোখে পড়ার মতো। প্রবাসী ছাড়াও বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ছুটে আসা পর্যটকেরা একবার ঢু মারেন এই গার্ডেনে। কর্ম ব্যস্ততার মধ্যে এই বাগানে আপন মন রাঙিয়ে নিতে অনেকে প্রিয়জনকে নিয়ে ঘুরে আসতে কাপর্ণ্য করেন না ।

দুবাই বাটারফাই ও মিরাকল গার্ডেনের প্রধান বিদ্যুৎ প্রকৌশলী কামরুজ্জামান হানিফ এই প্রতিবেদককে বলেন, ফুলকে ভালোবাসে না এমন মানুষ পৃথিবীতে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। নানা কিছুর আদলে থরে থরে সাজানো এই বাগান নিমিষেই পর্যটকদের মন কেড়ে নেবে। পৃথিবীর বুকে আরো অনেক এমন ফুলের বাগান রয়েছে। কিন্তু বাগানে সাত হাজার টনের অধিক ফুল, ফুল দিয়ে সৃষ্ট দেয়াল ও ফুলের ঝুড়ি দিয়ে সাজানো এই বাগান ওয়ার্ল্ড গিনেস বুকে জায়গা করে নিয়েছে তিনবার।

প্রত্যেকের নিজ বা মনের মানুষের জন্ম দিন পালনের জন্য রয়েছে বৃহদাকার ঘড়ির ওপর ওই দিনের তারিখসহ লেখা হ্যাপি বার্থডে। কৃত্রিম আকারের কোথাও উঁচু পাহাড়, হ্রদ ও পানির ফোয়ারা সম্মিলিত এই বাগান যেন এক অন্যন্য সুন্দর সৃষ্টি।

দুবাই বাটারফাই ও মিরাকল গার্ডেনের প্রজেক্ট ম্যানেজার ডক্টর আইমন আহমদ বলেন, দুবাই গ্রীষ্মকালে অনেক গরম থাকে তাই এই সময় প্রকৃতি রুগ্ণ হয়ে যায়। সাধারণত এই সময়তে মরু অঞ্চলে কিছু উৎপাদন করা অকল্পনীয়। এই শীতের মওসুমে আমরা এই বাগানকে সাজিয়েছি পৃথিবীর নানা প্রান্তের নানা প্রজাতির ফুল দিয়ে, যা দেখে বাগানে আগতদের মন ফুলের মতো রাঙিয়ে দেবে। ফুলের ভালোবাসার মতো নিজেদের মধ্যে ছড়িয়ে দেবে মমতা।

ফুলের সৌরভ আর ভালোবাসায় ভরে উঠুক মানুষের মন। বিশ্বের বুক থেকে চিরতরে মুছে যাক হানাহানি ও হিংসা বিদ্বেষ। ফুলের মতোই সুন্দর ও পবিত্র হোক মানুষের জীবন। তাতেই আসবে এই বাগানের স্বার্থকতা।

সৌজন্যে : নয়া দিগন্ত

You might like