বাতিল হচ্ছে ই-টোকেন পদ্ধতি, পাঁচ বছর মেয়াদী ভিসা দেবে ভারত 28/11/2016



প্রতিবছরই বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে বেশি মানুষ ভারতে ভ্রমণ করতে পছন্দ করেন, বিশেষ করে দার্জিলিং, কলকাতা, মানালি এবং কাশ্মীর ভ্রমণ প্রবণতা দেখা যায় বাংলাদেশীদের মধ্যে । এজন্য ই-টোকেন করতে গিয়ে অনেকেই হয়রানির শিকার হয়ে থাকেন । যারা নিয়মিত ভারতে যাতায়াত করেন তাদের জন্য সুখবর দিয়েছেন বাংলাদেশে দেশটির দূত হর্ষ বর্ধণ শ্রিংলা।
 
 
তিনি জানিয়ছেন, স্বল্প মেয়াদী ভিসার বদলে পাঁচ বছর মেয়াদী ভিসা দেয়ার চিন্তা করছে তার দেশ। এরইমধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
 
শনিবার মাদারীপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে হর্ষ বর্ধণ শ্রিংলা এ কথা বলেন। তিনি বলেন, কেবল দীর্ঘ মেয়াদি ভিসা নয়, ভিসা পাওয়ার ক্ষেত্রে ভোগান্তি যেনো কম হয় সে বিষয়টিও নিশ্চিত করবে তার দেশ। শিগগিরই বাতিল করা হবে ভোগান্তির ই-টোকেন পদ্ধতি।
 
প্রতিবছর ভারতে যত দেশ থেকে মানুষ ঘুরতে যায় সংখ্যার বিচারে তারমধ্যে তৃতীয় অবস্থানে বাংলাদেশ। কিন্তু বিপুল সংখ্যক ভ্রমণপ্রত্যাশী ভিসা সংগ্রহ করতে গিয়ে ভোগান্তির শিকার হয়। নানা সময় নানা চেষ্টা করেও এই ভোগান্তি কমানো যাচ্ছে না।
 
তবে হাইকমিশনার বলছেন, ভিসা জটিলতার অবসান হবে শিগগিরই। তিনি বলেন, এখন কোনো ব্যক্তি শুধু একা নয়, গোটা পরিবার নিয়ে যেকোনো কাজের জন্য ভারতে যেতে পারবে। এজন্য এক বছর মেয়াদী নয়, এখন থেকে পাঁচ বছর মেয়াদী ভিসার দেয়ার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।