বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশের ক্ষেত্রে ভিসা এন্ট্রি-এক্সিট শর্ত থাকছে না 31/07/2016



অনেক বার্তাই সুসংবাদ নিয়ে আগমণ করে, বাংলাদেশীরা সবচেয়ে বেশী ভ্রমণ করেন পাশের দেশ ভারতে । কিন্তু এই ভারতের ভিসা পেতেই বাংলাদেশীদের নানারকম ভোগান্তি পোহাতে হয় । দিল্লি সফর শেষে দেশে ফিরে রোববার (৩১ জুলাই) তার নিজ দফতরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশের ক্ষেত্রে ভিসা এন্ট্রি-এক্সিট শর্ত থাকছে না। আকাশ বা সীমান্ত পথে প্রবেশ করে আবার যেকোনো পথেই ফেরৎ আসা যাবে।

তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে ভিসা এন্ট্রি-এক্সিটের বর্তমান ব্যবস্থায় আমাদের জনগণের ভোগান্তি হচ্ছে। তাই আমরা তাদের এন্ট্রি-এক্সিটে বাধ্যবাধকতা তুলে নিতে প্রস্তাব দিয়েছিলাম। ভারত সরকার আমাদের প্রস্তাবে সম্মত হয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রবীণদের ভিসা সহজ এবং বিশেষ সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাবও তারা ভেবে দেখেছে। শিগগিরি এটি কার্যকর হবে।

বহাল নিয়মে বাংলাদেশের নাগরিকদের ভারতে প্রবেশের ক্ষেত্রে কোন পথে প্রবেশ করবে তা ভিসা আবেদনে উল্লেখ করতে হয়। আর শর্ত অনুযায়ী, যে পথে প্রবেশ করবে, সেই পথেই ফেরৎ আসার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

সফরকালে দুই দেশের স্বার্থ সম্পর্কিত বিষয়ে বৈঠক হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. মোজাম্মেল হক খান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বিজিবি প্রধান, নারকোটিক্স প্রধানসহ ১৪ জনের প্রতিনিধি দল গত ২৭ জুলাই ভারত সফরে যান, যোগ করেন কামাল।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও জানান, জঙ্গি-সন্ত্রাস মোকাবেলায় ভারত বাংলাদেশের পাশে থাকার কথা জানিয়েছে।

বেড়েছে বছরে সীমান্ত হত্যা
গত দুই বছরে সীমান্তে হত্যাকাণ্ড বড়েছে। আমরা বিএসএফ’র হত্যাকাণ্ড বন্ধের বিষয়টি আলোচনায় এনেছি, তারা রাজি হয়েছে।
সীমান্তে হত্যাকাণ্ডের পরিসংখ্যান আমরা ভারত সরকারের কাছে দিয়েছি। মাদক-চোরাচালন বন্ধে আমরা ভারতে প্রস্তাব দিয়েছি, তাতেও তারা সম্মত হয়েছে।