গোলাপের রাজ্য ভ্রমণ 15/06/2016



ঢাকা শহরের যানজট আর ব্যস্ততম জীবনে অতিষ্ট জনজীবন। অাবার একটু সময় করে কোথাও যে ঘুরতে যাবেন সে সময় নেই। আর সময় থাকলেও দেখা দেয় অর্থ সংকট। এরকম ব্যক্তিরা মনকে একটু প্রশান্তি দেয়ার জন্য  অসাধারণ এই স্থানটি বেছে নিতে পারেন।

এখানে ঘুরে আসতে একদিনই যথেষ্ঠ আর টাকা লাগবে জনপ্রতি সর্বোচ্চ ১৫০ থেকে ২০০। তবে এর চেয়ে বেশী খরচ করতে চাইলেও করা যাবে।



ঢাকার পাশেই এই গ্রামটির নাম হলো গোলাপ গ্রাম। মেঠো পথ আর ফসলের ক্ষেতে ধান বা পাট নয় শুধু গোলাপ আর গোলাপ। আর আছে একটি স্বচ্ছ গ্রামের উত্তম প্রতিচ্ছবি। সবুজ শ্যামল প্রকৃতির সাথে গোলাপের লাল পাপড়িকে কতই না সুন্দর করে মিশিয়ে দিয়েছেন সৃষ্টিকর্তা।

কিভাবে যাবেন:
এখানে বাসে করেও যাওয়া যায় আবার নৌকাতেও যাওয়া যায়। তবে নৌকাতে গেলে আপনার ভ্রমনের আনন্দ বেড়ে যাবে কয়েকগুণ। ঢাকার যে কোনো স্থান থেকে আপনাকে যেতে হবে মিরপুর-১ কিংবা গাবতলির মাজার রোড।  এখান থেকে আপনাকে মিরপুর দিয়াবাড়ি বটতলা ঘাটের রিক্সা নিতে হবে। ভাড়া পড়বে ৩০-৩৫ টাকা।

দিয়াবাড়ি বটতলা ঘাট থেকে যেতে হবে সাহদুল্লাহপুর ঘাট। সাহদুল্লাহপুর ঘাটের উদ্দেশ্যে এখান থেকে ৩০ মিনিট পর পর ইঞ্জিন চালিত নৌকা ছাড়ে। বটতলা ঘাট থেকে সাহদুল্লাহপুর ঘাটের ভাড়া জনপ্রতি ২০ টাকা। সময় লাগবে ১ ঘণ্টার কিছু কম।

এছাড়া এখান থেকে হাতে চালিত নৌকা রিজার্ভ করে নিতে পারেন। তবে এতে সময় লাগবে প্রায় তিন ঘন্টা। নৌকা করে যাওয়ার সময় নদীর দুপাশের দৃশ্য আপনাকে মুগ্ধ করবে।

সাহদুল্লাপুর ঘাটে পৌঁছানোর পর সেখান থেকে হালকা নাস্তা করে নিতে পারেন। এরপর পুরো গ্রামটা হেঁটে ঘুরবেন। আপনি এতক্ষন কোথায় কি দেখতে এসেছেন তা বুঝতে পারবেন যখন এই গ্রামের ভিতরে প্রবেশ করবেন। পুরোটাই যেন গোলাপের বাগান! উঁচু জমিগুলো গোলাপে গোলাপে ভরা। লাল, হলুদ, সাদাসহ নানা বর্ণের গোলাপ।

এছাড়াও ঘাটে নেমে মাত্র ৫ টাকা ভাড়া দিয়ে অটোতে করে চলে যেতে পারেন গােলাপের বাজারে। এখান থেকে সারাদেশে গোলাপ যায়। এখানে প্রতিদিন সন্ধায় বসে গোলাপের হাট। বেচা-কেনা চলে মধ্যরাত পর্যন্ত।

সারাদিন ফুলের সাথে কাটিয়ে তার সৌরভ মেখে আপনাকে বিকাল হলেই ফিরে আসতে হবে। কেননা ৬ টার পর আর ঘাট থেকে নৌকা ছাড়ে না। এখান থেকে আপনি ক্ষেত থেকে সরাসরি গোলাপ কিনতে পারবেন। আর দাম অনেক সস্তা। ৫০টি গোলাপের দাম মাত্র ৮৫ থেকে ১০০ টাকা।

বাসে যেতে চাইলে-
নৌকায় করে না গিয়ে বাসে যেতে চাইলে গাবতলি মাজার এর সামনে কোনাবাড়ী বাসস্ট্যান্ড থেকে বাস ছেড়ে যায়। ওখান থেকে সরাসরি আক্রান বাজার। ভাড়া ২০ টাকা। আক্রান বাজার থেকে অটো তে করে ফুলের বাজারে কিংবা সাহদুল্লাহপুর গ্রাম ১০ টাকা।

খাবার-দাবার:
এখানে আপনি মোটামুটি মানের কিছু খাবার হোটেল পাবেন। তবে বেশী ভালো হয় বাসা থেকে খাবার তৈরি করে আনলে।

You might like