ছবি তুলে টাকা রোজগার করতে চান? 02/06/2016



ছবি তোলা কি আপনার হবি? তবে এই শখই হতে পারে রোজগারের ঠিকানা। কী করে? বহু ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে ছবি বিক্রি করে উপার্জন করতে পারেন। তেমন ১০টির খোঁজ রইল—

১) আইস্টক (http://www.istockphoto.com)

প্রতিটি ডাউনলোডের জন্য ১৫ শতাংশ রয়্যালটি রেটে পেমেন্ট করা হয়। চাইলে আপনি এদের এক্সক্লুসিভ কন্ট্রিবিউটর হিসেবেও কাজ করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আয়ের পরিমাণ অনেকটাই বেশি হবে। তবে এই সাইট ছাড়া অন্য সাইটে ছবি দিতে পারবেন না। 

২) স্মাগমাগ (https://www.smugmug.com/features/sell-photos-online)

এই ওয়েবসাইট হল ছবির ইকমার্স সাইট। এখানে নিজেদের ছবি শোকেস করা যায়। নিজেই নিজের ছবির দাম ঠিক করে দিতে পারবেন। ডিজিটাল ডাউনলোড ছাড়াও ছবির হার্ড কপি এবং গ্রিটিংস কার্ডও বিক্রি করতে পারবেন। 

৩) অ্যালামি (http://www.alamy.com)

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় স্টক ফোটো লাইব্রেরি। ৬০ শতাংশ রয়্যালটি ফি পেমেন্ট করা হয় ফোটোগ্রাফারদের। সবচেয়ে বড় কথা এখানে এক্সক্লুসিভ ইমেজ রাইট দেওয়ার জন্য কোনও রকম চাপ দেওয়া হয় না। অর্থাৎ এই সাইটে দেওয়া ছবি অন্য সাইটেও দিতে পারবেন। 

৪) ফ্লিকর-গেটি (http://www.gettyimages.co.uk/?sunset=flickrimagerequest)

২০১০ সালে ফ্লিকর এবং গেটি ইমেজেস হাত মিলিয়ে তৈরি করে এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে ফোটোগ্রাফাররা রয়্যালটি-ফ্রি ছবিও বিক্রি করতে পারবেন আর তাদের কপিরাইটও নিয়ন্ত্রণ করা হবে। ইমেজ শেয়ারিং এবং স্টক ছবি বিক্রি—দুই মিলিয়েই তৈরি হয়েছে গেটি ইমেজেস কল ফর আর্টিস্টস গ্রুপ। এখানে ছবি দিয়ে অপেক্ষা করতে হবে অ্যাপ্রুভালের জন্য। প্রতিটি ছবি বিক্রির জন্য ২০ শতাংশ রয়্যালটি পাবেন। তবে এই মুহূর্তে নতুন ছবি নেওয়া বন্ধ রয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর থেকে আবার চালু হবে। 

৫) ফোটোলিয়া (https://www.fotolia.com)

৪০ লক্ষেরও বেশি ক্রেতা রয়েছেন এঁদের লুপে। রয়্যালটির পরিমাণও খুব ভাল। প্রত্যেকটি ছবি বিক্রির ২০ শতাংশ থেকে ৬৩ শতাংশ পর্যন্ত রয়্যালটি পাওয়া যায়। টাকা সঙ্গে সঙ্গে জমা পড়ে যাবে আপনার ফোটোলিয়া অ্যাকাউন্টে।

৬) ড্রিমসটাইম (http://www.dreamstime.com)

অত্যন্ত জনপ্রিয়। নিজের তোলা ছবি পাঠিয়ে আবেদন করতে হয়। এডিটর সম্মতি দিলে সাইট মারফত বিক্রি করতে পারেন ছবি। প্রত্যেকটির জন্য ২৫ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশ রয়্যালটি পাওয়া যায়। যদি শুধুই এদের জন্য কাজ করার চুক্তি সই করেন তবে আরও ১০ শতাংশ বেশি রয়্যালটি পাওয়া যাবে। 

৭) ফোটোশেল্টার (http://www.photoshelter.com)

ছবি বিক্রির পুরো প্রক্রিয়াটা যদি নিজের হাতের মুঠোয় রাখতে চান এবং নিজেই নিজের ছবির দাম ধার্য করে সবচেয়ে বেশি মুনাফা করতে চান তবে ফোটোশেল্টার মারফত একটি বিল্ট-ইন ইকমার্স প্রফেশনাল ফোটোগ্রাফি সাইট খুলে নিতে পারেন। সাইটগুলি দেখতে দারুণ হয়, সঙ্গে সিকিওর ক্লাউড স্টোরেজও থাকে। বিক্রি এবং লাইসেন্সিং সবই সহজ হয়ে যায়। 

৮) শাটারস্টক (http://www.shutterstock.com)

অন্যতম প্রধান স্টক ফোটো সাইট। প্রত্যেকটি ছবি বিক্রির জন্য ০.২৫ ডলার থেকে ২৮ ডলার পর্যন্ত পেতে পারেন। নির্ভর করছে কী ধরনের লাইসেন্স রয়েছে তার উপরে। 

৯) ওয়ানটুথ্রিআরএফ (http://www.123rf.com)

কত ছবি আপলোড করছেন প্রতিদিন তার উপরে নির্ভর করে আপনি কত শতাংশ রয়্যালটি পাবেন। যাঁরা সারাদিন ছবি তোলেন, তাঁদের পক্ষে খুবই ভাল। ৩০ থেকে ৬০ শতাংশ রয়্যালটি পেতে পারেন। 

১০) ক্যান স্টক ফোটো (http://www.canstockphoto.com

সদস্য হলে খুব সহজেই ফোটো সাবমিট করতে পারবেন। একসঙ্গে প্রায় ১০০টি ইমেজ আপলোড করতে পারবেন। প্রায় ৫০ শতাংশ রয়্যালটি পেতে পারেন। 

You might like