চট্টগ্রামের ৫ দর্শনীয় স্থান- ঘুরে আসুন আজই 29/05/2016



বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ও বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রাম। “স্বাস্থ্যকর শহর” নামেও পরিচিতি আছে এ শহরের। আর সবচেয়ে বড় পরিচয় হচ্ছে বঙ্গোপসাগরে কোল ঘেঁষে দাঁড়িয়ে আছে এ বন্দর নগরী। এ ফিচারে আমরা তুলে ধরবো চট্টগ্রামের কিছু দর্শনীয় স্থান।

১। ভাটিয়ারি গলফ কোর্স

চট্টগ্রাম শহরের প্রবেশ মুখ বলা হয় সিটি গেইটকে। এর থেকে কিছুটা দূরেই ভাটিয়ারি। জায়গাটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে পূর্ণ। এখানে রয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নির্ধারিত সুন্দর গলফ কোর্স, দুর্দান্ত সুন্দর লেক। সবুজ পাহাড়ের সৌন্দর্য আপনাকে মুগ্ধ করবে।

ইচ্ছে করলেই লেকে নৌকা নিয়ে ঘুরা যায় এবং ছিপ দিয়ে মাছ শিকার করা যায়। আর জায়গাটি যেহেতু সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রিত তাই এখানে নিরাপত্তাও খুব ভালো। এখানে রয়েছে খাবার ও বিশ্রামের জন্য ভাল মানের রেস্তোঁরা।

২। সীতাকুন্ড ইকো পার্ক সীতাকুন্ড

চট্টগ্রাম শহর থেকে ১ ঘন্টা দুরত্বের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ধার ঘেঁষেই। এখানে এলে দেখবেন জোড়া ঝর্ণা- শত সহস্র ঝর্ণা ও সহস্ত্র ঝর্ণা। তবে ঝর্ণারধারে যাওয়া  আসাটা বেশ কষ্টসাধ্য।

কিন্তু ঝর্ণার সৌন্দর্য আপনার পথের ক্লান্তি ভুলিয়ে দেবে নিশ্চিতভাবেই। এছাড়া রয়েছে  সীতাকুন্ড ইকো  পার্ক, যাতে রয়েছে নানা রকমের গাছ ও প্রানী।

৩। মিনি বাংলাদেশ

নিজের দেশটা ঘুরে দেখার সাধ থাকে না কার? কিন্তু সাধ ও সাধ্যের মিল ঘটানোই যে কঠিন! পুরো বাংলাদেশ একবারে ঘুরে দেখতে চান? তবে চলে আসুন চট্টগ্রামের মিনি বাংলাদেশে। আমি নিশ্চিত যে এখানে আসার পর আপনার মনে হবে একটা কথাই, “Just Wow!”

এখানে বাংলাদেশের প্রায় সব জেলার বিখ্যাত স্থানগুলোর রেপ্লিকা রয়েছে। সুপ্রীম কোর্ট, জাতীয় সংসদ ভবন, ষাট গম্বুজ মসজিদ, কান্তজীর মন্দির, আহসান মঞ্জিল- কী নেই এখানে! চট্টগ্রাম শহরের যেকোন জায়গা থেকে বাস, ট্যাম্পু বা সি এন জি যোগে এখানে যাওয়া যায়। মিনি বাংলাদেশ চট্টগ্রামের বদদ্দারহাট বাস টার্মিলারের প্রধান প্রবেশ পথের বিপরীতেই অবস্থিত।

৪। ওয়ার সিমেট্রি

দ্বিতীয় বিশ্বযযুদ্ধে ব্রিটিশ ও আরো অনেক দেশের সেনাবাহিনী নাম জানা বা অজানা নিহত সেনাদের সমাধিস্থল এই ওয়ার সিমেট্রি। চট্টগ্রামের মেহেদিবাগ গল পাহাড় এলাকায় এর অবস্থান। এখানে ঢুকতে কোন ফি নেয়া হয় না। তবে মৃতদের সম্মান প্রদর্শনের জন্য এখানে জুতো নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ ও এখানে বসা যায় না। তবে জায়গাটি অসাধারণ সুন্দর।

৫। পার্কি সমুদ্র সৈকত

চট্টগ্রাম নিউমার্কেট থেকে আনুমানিক ২৫ কিলোমিটার দুরত্বে আনোয়ারা উপজেলায় এর অবস্থান। তৃতীয়  কর্ণফুলী  সেতু পার হয়ে কক্সবাজার যাওয়ার পথে কাফকো/ সি ইউ এফ এল বা আনোয়ারা কানেকটিং রোডে যেতে হয়। কর্ণফুলী সার কারখানার দক্ষিনে চট্টগ্রাম ইউরিয়া সার কারখানা তার কিছু পরেই পার্কি বিচ।

পাবলিক ট্রান্সপোর্ট আছে। নিজস্ব পরিবহন বা সিএনজি স্কুটার বা পরিবার নিয়ে গেলে ভাড়া করা মাইক্রোবাসে ভ্রমণ করা সুবিধাজনক।