প্রকৃতির অদ্ভুত খেয়াল- উষ্ণ প্রস্রবণ বা গেইজার্স (দেখুন ছবিতে) 07/05/2016



প্রথমেই জেনে নিই উষ্ণ প্রস্রবণ কি! উষ্ণ প্রস্রবণ হল মাটির অভ্যন্তর থেকে পানির বিচ্ছুরন। প্রায়ই এই বিচ্ছুরণ হয় ধোঁয়ার মত, জলীয় বাষ্পে পূর্ণ। কোন কোন অঞ্চলের প্রস্রবণ রঙ্গিনও হয়। কোথাও হয় অনেক প্রশস্ত। কোথাও বা অনেক উপরে উঠে যায় ভূমি থেকে। এধরণের প্রাকৃতিক প্রস্রবণের কারণ হতে পারে প্রকৃতির অদ্ভুত খেয়াল, আবার হতে পারে প্রকৃতির প্রতি মানুষের অন্যায়ের ফল! কারণ যাই হোক, প্রস্রবণগুলোর সৌন্দর্য্য টানে ভ্রমণপিপাসুদের। আসুন জেনে নিই, কয়েকটি উষ্ণ প্রস্রবণের কথা।

Fly Geyser – Nevada, USA
১৯৬৪ সালে ভুল ভাবে কূপ খনন করার কারণে মাটির নীচের দ্রবিভূত খনিজ বিস্ফোরণ ঘটে এই প্রস্রবণের সৃষ্টি হয়। কোন আকৃতির প্রস্রবণটি এখন তৈরি করেছে অপূর্ব নান্দনিকতা। এটি ১.৫ মিটার উঁচুতে পানি বিচ্ছুরণ ঘটায়।
 
 
Strokkur Geyser – Iceland
আইসল্যান্ডের হিভিতা নদীর পাশে এর অবস্থান। এর উচ্চতা উপরের দিকে ওঠে ১৫-২০ মিটার পর্যন্ত, এমনকি কখনো কখনো ৪০ মিটার পর্যন্ত। নীচের নীলাভ রং আর উচ্চতার বিশেষত্বের জন্য এটি অগুণতি পর্যটক আকর্ষণ করে প্রতিবছর।
 
El Tatio Geyser – Chile
একটি দুইটি নয়, বিশাল একদল উষ্ণ প্রস্রবণের দেখা মিলবে এখানে। উত্তর চিলির আন্দেস পর্বতের মাঝের ভূমিতে এদের অবস্থান। ভূপৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা ৪,৩২০ মিটার। উচ্চতার দিক থেকে এরাই প্রথম। ৮০ টি উষ্ণ প্রস্রবণ স্বক্রিয় আছে এখানে।
 
 
Velikan Geyser – Russia
কামচাকতা পেনিন্সুলা উষ্ণ প্রসবণের ডলিনা উপত্যকায় এর অবস্থান। ভেলিকান শব্দের অর্থ দৈত্য। এই অঞ্চলের সবচেয়ে দীর্ঘ প্রসবণ এটি। প্রস্রবনটি ৬-৮ ঘন্টা পর পর ১ বার করে মাত্র মিনিটখানেকের জন্য পানি বিচ্ছুরিত করে। আর সেই পানি উপরের দিকে উঠে যায় ২৫ মিটার পর্যন্ত।
 
 
Geysir Andernach – Germany
জার্মানির এন্ডারনাকে প্রাকৃতিক সংরক্ষণ “Namedyer Werth” এই প্রস্রবণের অবস্থান। এটি বিভিন্ন কারণে অন্যান্য প্রস্রবণ থেকে ভিন্ন এবং অনন্য। তাঁর একটি কারণ হল এটি প্রাকৃতিক নয়, বরং এর সৃষ্টি করা হয়েছে ভূমিতে ড্রিল করে ১৯০৩ সালে। এর পানি ঠান্ডা এবং উচ্চতা ৬৪ মিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে।
 
 
Castle Geyser – Yellowstone National Park, USA
ইয়েলোস্টোন ন্যাশনাল পার্কে এর অবস্থান। এই পার্কে ১০ হাজারের মত হট স্প্রিংস আছে। সম্প্রতি গবেষণায় বলা হয়, এটি প্রথম বিচ্ছুরিত হয় ১০০০ বছর আগে। কোন আকৃতির প্রস্রবণটি নামের মতোই রহস্যময়।

সৌজন্যে : প্রিয়.কম