ঝুলন্ত হোটেল 02/04/2016



পৃথিবীর অনেক দেশেই রয়েছে নামীদামী হোটেল। তবে এমন কোনো হোটেলের নাম শুনেছেন কী যেটি মাধ্যাকর্ষণ শক্তিতে হার মানিয়ে দিব্যি শূন্যে ভাসছে। শুনে নিশ্চয় আশ্চর্য হচ্ছেন। অবশ্য হওয়ারই কথা। আশ্চর্য হলেও ঘটনা কিন্তু সত্যি।  হলফ করে বলতে পারি, এই হোটেলে থাকলে সারাজীবন মনে রাখতে হবে আপনার।
ভাবছেন, কোথায় সেই হোটেলটি? হ্যাঁ হোটেলটির অবস্থান হচ্ছে পেরুর কুজকোর উপত্যকায়।  গভীর খাদের গা বরাবর ঝুলন্ত হোটেল।  আক্ষরিক অর্থেই ঝুলছে সেই হোটেলটি। খাদের ধারটি ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১,৩০০ ফিট উপরে।

দেখতে অনেকটা ক্যাপসুলের মতো।  এরকম এক একটি ক্যাপসুলে রয়েছে আটজনের শোওয়ার বেডরুম, ডাইনিং রুম এবং বাথরুম।  পুরোটাই ঢাকা স্বচ্ছ দেয়ালে।  অর্থাৎ খাদের ওপর থেকে দিন বা রাতের অপরূপ প্রকৃতি সবসময় থাকছে আপনার চোখের সামনে।

বাড়ির কার্নিশের মতই এই ক্যাপসুলের বাইরে পাহাড়ের ওপর রয়েছে বসার জায়গা।  পাতা রয়েছে টেবিল-চেয়ার।

এত উঁচু হোটেলে কীভাবে উঠবেন? সেখানেই তো আরও অ্যাডভেঞ্চার। কোমরে দড়ি বেঁধে, পাহাড়ের গা বেয়ে চড়তে হবে ৪০০ মিটার।  তবে গিয়ে পৌঁছবেন সেই স্বপ্নের হোটেলে।

সেই স্বপ্নের ভ্রমণের খরচ? হোটেল, হোটেলে যাওয়া ও নেমে আসার সরঞ্জাম, প্রশিক্ষকের সাহচর্য, স্ন্যাকস, ব্রেকফাস্ট ও ডিনার- সবকিছুর জন্য খরচ একদিনে জনপ্রতি মাত্র ১২,০০০ টাকা।

পেরুর কুজকোর উপত্যকায় এই দারুণ রোমাঞ্চ উপভোগের সুযোগ এনে দিয়েছে স্কাই লজ অ্যাডভেঞ্চার স্যুট।

You might like