রংধনুর পাহাড় 24/03/2016



পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে নানা রহস্যময় জায়গা রয়েছে। যার কোন কোনটির রহস্য আজও অজানা। উত্তর চীনের জাঙিয়া ডানক্সিয়া প্রদেশের ভূমির রং, রংধনুর রংকেও হার মানায়। বহু চিত্রশিল্পী এ যায়গায় এসে তাদের মাস্টারপিস এর পিছনের আবরণ অঙ্কন করার জন্য পরিকল্পনা করেন। এটি কেন্দ্রীয় উত্তর চীনের গান্সু জেলায় লিঞ্জি ও সুনান শহরে ৪০০ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে অবস্থিত।

বিশালতা
ভূমিটি কয়েকশত মিটার উচ্চ। যার অধিকাংশই প্রিচিপিটাস ক্লিফ দ্বারা তৈরি। এই ক্লিফগুলো সমভূমিতে ও নদীর পাশে অবস্থিত। সমস্ত ক্লিফগুলো মহৎ , গ্র্যান্ড, মসৃণ এবং ধারাল। সমস্ত ভূমিটি দেখতে অনেকটা শক্তিশালী।

স্বতন্ত্রতা
ডানক্সিয়া ভূমিজোন জুড়ে, অনেক লালপাথুরে আউটক্রোপ রয়েছে। এই আউটক্রোপগুলো অদ্ভুত ও চমৎকার কিছু আকৃতির তৈরি। সেখানে কোণ, টাওয়ার, মানুষ, প্রাণী, পাখি ইত্যাদির আকৃতির পাথর রয়েছে। এই পাথরগুলো এতো সুন্দর ভাবে সাজানো যে দেখে মনে হয়, তারা প্রানবন্ত এবং মেঘের উপর দিয়ে উঁকি মেড়ে দেখছে। পর্বত ও প্যাভিলিয়ন এর দৃশ্য মরীচিকার মত দেখতে।

অসাধারণ
পর্বত সবসময় খাড়া বা ঢালু হয়। মানুষ পাহাড়ে উঠতে বা পাহাড় থেকে নামার সময় ভয় পায়। কিন্তু এই ভূমিটি সমতল প্রায়। কিছু কিছু যায়গায় উঁচুনিচু রয়েছে।

গঠন

প্রায় ৬ লক্ষ বছর আগে জাঙিয়া ডানক্সিয়া ল্যান্ডফর্ম গঠিত হয়। জাঙিয়া ডানক্সিয়া এর ভূতাত্ত্বিক গঠন লাল বেলেপাথর, বিচ্ছিন্ন পীক ও খাড়া আউটক্রোপ দ্বারা তৈরি। দীর্ঘমেয়াদী তুষারপাত, পিলিং গলা বরফ, বায়ু ও পানির ক্ষয় এর দ্বারা জাঙিয়া ডানক্সিয়া এর ভূতাত্ত্বিক গঠনের আমুল পরিবর্তন হয়েছে।
এটি প্রধানত জুরাসিক ও তৃতীয় যুগের একাত্মতার সময়, আনুভূমিক ও কম তির্যক লাল স্তর ছিল। জাঙিয়া ডানক্সিয়া মূলত দীর্ঘদিনের বিভিন্ন পুরু লাল বেলেপাথর ও শক্তিগুলোর মধ্যে উল্লম্ব যৌথ উন্নয়ন থেকে গঠিত।

জাঙিয়া ডানক্সিয়া প্রধানত লাল নুড়ি, বেলেপাথর ও ভিজাপাথর এর তৈরি। সেখানে শুষ্ক বা আধা-শুষ্ক জলবায়ু থাকে সবসময়। এখানের আউটক্রোপগুলো খাড়া দেয়াল, ক্রস স্তর, উল্লম্ব জয়েন্টগুলোতে চমৎকার রং দিয়ে সাজানো মনে হয়।

ভূতাত্ত্বিকগণ মনে করেন, জাঙিয়া ডানক্সিয়া হল পৃথিবীর কোন এক প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলাফল। এই শিলাস্তরটি বিভিন্ন রং, গঠন, আকার, আয়তন ও ঘনত্ব স্তরটিকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলে।
জাঙিয়া ডানক্সিয়া সবুজ, হলুদ, নীল এবং আরও অনেক রঙের সমন্বয়ে গঠিত। বিশেষজ্ঞগণের মতে, লাল পাহাড় থেকেই আস্তে আস্তে এসব রঙের সৃষ্টি হয়েছে।
 
সৌজন্যঃ আইটি ওয়ার্ল্ড 

You might like