ভ্রমণের পোশাক নির্বাচনে যে বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখবেন 14/03/2016



প্রকৃতির নৈসর্গিক ছোঁয়া পেতে লাখ লাখ পর্যটক প্রতিবছর ছুটে যান দেশ বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে । বিভিন্ন মৌসুমে বিভিন্ন স্হানের আবহাওয়ার মধ্যে একটু ভিন্নতা থাকে । বছরের বেশিরভাগ সময়ই বিরাজ করে শীত ও উষ্ণ আবহাওয়া। কিন্তু যারা অ্যামেচার টুরিস্ট, তাদের অবশ্যই কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখা উচিত। তার মধ্যে অন্যতম হলো পোশাক।

ভ্রমণের পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে নিম্নের বিষয়গুলো মাথায় রেখেই ব্যাগ গোছানো উচিতঃ

ভ্রমণের স্থান, পরিবেশ এবং সংস্কৃতি মাথায় রাখা উচিত পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে। আপনি কোনও তীর্থস্থানে যে পোশাক পরে যাবেন সেই একই পোশাক পরে পাহাড়ে ট্রেকিং করতে পারবেন না। তাই যে এলাকায় বেড়াতে যাবেন সেখানকার স্থানীয় কালচার সাপোর্ট করে এমন পোশাক পরিধান করুন।

পোশাকের ফেব্রিক্স একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। গ্রীষ্মকালে বা গ্রীষ্মপ্রধান স্থানে ভ্রমণের সময় ১০০% কটন ড্রেস পরিধান করুন, তা ওজনে হালকা এবং লাইট কালারের হলে ভালো হয়। একইভাবে শীতকালে বা শীতপ্রধান স্থানে গাঢ় রঙের মোটা তাপনিরোধক কাপড়ের তৈরি জামা পরিধান করুন।

জামার রং অবশ্যই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা আমরা ভ্রমণে বের হবার সময় লক্ষ্য রাখিনা। পাহাড় বা বনাঞ্চলে ভ্রমণের সময় অবশ্যই উজ্জ্বল কোন রঙের জামা পরিধান করা উচিত নয়, কালো রং টা অবশ্যই পরিহার করবেন । প্রচুর হাঁটতে হবে এমন ট্যুরে সাদা রঙের জামাই শ্রেয়।

ভ্রমণের সময় যতসম্ভব প্রয়োজনের চেয়ে বেশী জামা নেয়া উচিত নয়। কারন, আপনার জামা কাপড়ের কারনে আপনার লাগেজ বা ব্যাকপ্যাক ভারী হয়ে গেলে তা আপনার জন্যই সমস্যার কারন হয়ে দাঁড়াবে। আমার ব্যাক্তিগত অভিমত পারলে এক জামাতেই ভ্রমণ শেষ করা, যদিনা তা দুইদিনের বেশী হয়।

ভ্রমণের সময় আঁটসাঁট জামা পরিধান করা উচিত নয়, যতটা ঢিলেঢালা পোশাক পরিধান করা যায় ততই ভাল, কেননা ভ্রমণের জামা কমফোর্টেবল হওয়া জরুরী।

ভ্রমণের পোশাক অবশ্যই এমন হতে হবে যেন তাপনিরোধক হয়, পোকামাকড় যেন আকৃষ্ট না হয়, দ্রুত পানি শুকিয়ে যায়, ক্ষতিকর রশ্মি নিরোধক হয়।

জামার পকেট থাকা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শার্টের পকেটে টিকেট, সানগ্লাস, অন্যান্য ছোটখাটো জিনিস রাখা যায়; টাকা-পয়সা, মূল্যবান ও জরুরী কাগজপত্র, যেমন পাসপোর্ট, এগুলো প্যান্টের পকেটে; সাইড পকেট বা মোবাইল পকেটে বিভিন্ন প্রয়োজনীয় টুলস রাখা যায়। তাই পকেটযুক্ত জামা সিলেক্ট করুন ভ্রমণের সময়।

ভ্রমণের সময় মোজা, কাপড়ের টুপি/ হ্যাট, রুমাল, গামছা এগুলোর প্রতি অনেকেই গুরুত্ব দেই না। এগুলো অবশ্যই কটন, তাপনিরোধক, দ্রুত পানি শুকোয় এমন হওয়া উচিত।

ভ্রমণের প্রতিটি জামা আলাদা আলাদা পলিপ্যাকে করে লাগেজ/ব্যাগপ্যাকে ভরা উচিত।

সর্বোপরি প্রতিটি জামা সিলেক্ট করার সময় ট্যুরের ধরণ, স্থান-পরিবেশ-লোকজ রীতিনীতি, আপনার স্বাচ্ছন্দ্য ইত্যাদি মাথায় রাখুন। এমন কোন জামা ভ্রমণে পরিধান করা উচিত নয় যা আপনার ভ্রমণে কোন ব্যাঘাত সৃষ্টি করে।

You might like